সোমবার, অক্টোবর ২৩, ২০১৭
হোম > বিষয়ভিত্তিক সংবাদ > ‘শৈল্পিক স্বাধীনতা’ নিয়ে দৃকের দু’দিনব্যাপী আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

‘শৈল্পিক স্বাধীনতা’ নিয়ে দৃকের দু’দিনব্যাপী আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

গত ১৭ এবং ১৮ মে তারিখে রাজধানীর লা ভিঞ্চি হোটেলে “শৈল্পিক স্বাধীনতা” শীর্ষক দু’দিনব্যাপী আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। শিল্পী সমাজের নানা ধরনের সমস্যা সমাধান এবং তাদের অবস্থা উন্নত করার উপায় বিকাশের জন্য দৃক এবং ফ্রিমিউজের যৌথ উদ্যোগে এ সভাটি অনুষ্ঠিত হয়। এ দু’টি প্রতিষ্ঠানই শৈল্পিক স্বাধীনতা প্রতিষ্ঠা এবং সুরক্ষায় দীর্ঘদিন ধরে কাজ করে আসছে।

এ আলোচনা সভায় স্বনামধন্য কতিপয় শিল্পী এবং আর্টিকেল 19 সহ বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠন অংশগ্রহণ করেন। নৃত্য, চলচ্চিত্র, সঙ্গীত, থিয়েটার, চারুকলা এবং ফটোগ্রাফিসহ শিল্পীজগতের প্রায় সকল বিভাগের ব্যক্তিরা তাদের কাজের ফলস্বরুপ সেন্সরশীপ ও ভীতিপ্রদর্শনের অভিজ্ঞতা সবার সামনে তুলে ধরেন।

সারা বিশ্বজুড়ে শিল্পীরা নানাধরনের হুমকি ও সীমাবদ্ধতার মুখোমুখি হচ্ছে। এ ধরনের চ্যালেঞ্জ বাংলাদেশের শিল্পীদের জন্যও একটি দৈনিক বাস্তবতা।

আর্টিকেল 19 বাংলাদেশ ও দক্ষিণ এশিয়ার পরিচালক তাহমিনা রহমান শৈল্পিক স্বাধীনতা রক্ষায় তার বক্তব্য তুলে ধরেন।

দৃকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শহীদুল আলম বলেন, “বাংলাদেশের শিল্পীরা ঐতিহাসিকভাবে মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে রক্ষা করেছে। চরম অসহিষ্ণুতা, এবং ভিন্নমত দমনের এই সময়ে সকল শিল্পীদের এক হয়ে তাদের হারানো স্থান পুনরুদ্ধার করতে হবে। এই নতুন উদ্যোগের লক্ষ্য হলো বর্তমান পরিস্থিতির উন্নতি সাধন করা এবং একই সাথে শৈল্পিক স্বাধীনতা রক্ষার্থে সরকারের দায়িত্ব পালন নিশ্চিতকরণে জবাবদিহিতার আওতায় আনা।”

এ আলোচনা সভাটি হলো বাংলাদেশে শিল্পী এবং শ্রোতাদের শৈল্পিক স্বাধীনতা রক্ষা এবং তাদের উন্নয়নের জন্য দৃক এবং ফ্রিমিউজের নেতৃত্বে নেওয়া এমনি একটি উদ্যোগের অংশ। এই সভায় বাংলাদেশসহ বিশ্বব্যাপী শৈল্পিক স্বাধীনতা লঙ্ঘনের চিত্র এবং কতিপয় কেস ষ্টাডি তুলে ধরা হয়।

আর্টিকেল 19 বাংলাদেশ ও দক্ষিণ এশিয়া গতবারের মত এবারও বাংলাদেশের Universal Periodic review ( 3rd Cycle) কে সামনে রেখে দেশে মত প্রকাশের স্বাধীনতার অবস্থা নিয়ে জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলে প্রতিবেদন পেশ করবে। অপরদিকে এই দু’টি প্রতিষ্ঠান এদেশের শৈল্পিক স্বাধীনতার অধিকার পর্যালোচনা করে প্রতিবেদন পেশ করবে। রিভিউটি ২০১৮ সালের মে মাসে জেনেভায় অনুষ্ঠিত হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *